স্বগৌরবে ১০ম বর্ষে পদার্পন করায় দুই দিন ব্যাপী ছাড় প্রদান

0

আলহামদু‌লিল্লাহ। মহান আল্লাহর অ‌শেষ মে‌হেরবানী ও সর্বস্ত‌রের জনসাধার‌ণের আন্ত‌রিকতায় “পদ্মা ক্লি‌নিক এন্ড ডায়াগন‌স্টিক সেন্টার” স্বাস্থ্য সেবা খা‌তে অনন্য এক সাফল্য নি‌য়ে স্ব‌গৌর‌বে ১০ম বছ‌রে পদার্পন কর‌ছে। তাই বাংলা নবব‌র্ষের এই শুভক্ষ‌ণে আজ ১৯ ও ২০ এ‌প্রিল-২০২৪ইং শুক্র ও শ‌নিবার দুই‌দিন ব্যাপী সকল প্রকার প্যাথলজিক্যাল টে‌স্টে (‌নিজস্ব ল্যাবের টেস্ট সমূহ) ৩০% (শতকরা ত্রিশ ভাগ) ছাড় প্রদান এবং র‌ক্তের গ্রুপ পরীক্ষা সম্পূর্ণ ফ্রি করা হ‌বে ইনশাআল্লাহ।

স্বাস্থ্য সেবায় আমা‌দের পা‌শে থাকার জন্য আপনাদের ধন্যবাদ।

ঈদ-উল-ফিতর-২০২৪ এর অভিনন্দন, শুভেচ্ছা ও সাধারণ ছুটি প্রসঙ্গ

0

আসসালামু আলাইকুম ওয়া রহমাতুল্লাহ।

আসন্ন ঈদউলফিতর উপলক্ষে সবাইকে ঈদ শুভেচ্ছা তাকাব্বালাল্লাহু মিন্না ওয়া মিনকুম
এতদ্বারা সর্ব সাধারণের অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যে, ঈদল-ফিতর২০২ উপলক্ষে পদ্মা ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার, হাসপাতাল রোড, চাঁপাইনবাবগঞ্জ এ আগামী ০৯//২০২ ইং তারিখ রোজ মঙ্গলবার হতে ১২//২০২ ইং তারিখ রোজ শুক্রবার পর্যন্ত সাধারণ ছুটি পালিত হবে। অর্থাৎ পদ্মা ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার এর সাধারণ আউটডোর কার্যক্রম উক্ত ছুটি সময়ে বন্ধ থাকবে। তবে আগামী ১২//২০২ ইং তারিখ রোজ শুক্রবার রোগী সাধারণের জরুরী আউটডোর সার্ভিস প্রদানের জন্য কিছু কিছু ডাক্তার/কনসালটেন্ট গণের চেম্বার খোলা থাকবে, যা পরবর্তীতে সোস্যাল মিডিয়া প্রচারণার মাধ্যমে জানায়ে দেয়া হবে ইনশাআল্লাহ। আগামী ১২//২০২ ইং তারিখ রোজ শুক্রবার এর আউটডোর কার্যক্রম সহ সাধারণ ছুটি কালীন সময়ের ইনডোর কার্যক্রম যথাযথভাবে পরিচালনার জন্য বিশেষ রোষ্টার মতে বিভিন্ন বিভাগে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা-কর্মচারিগণকে অতিরিক্ত দায়িত্ব হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে হবে।

পরবর্তী ১৩//২০২৩ ইং তারিখ রোজ শনিবার হতে ক্লিনিকের সকল কার্যক্রম স্বাভাবিকভাবে গ্রীষ্মকালীন সময়-সূচী মোতাবেক অর্থাৎ আউটডোর সার্ভিসের সময় সকাল ৮:০০ হতে রাত্রি ৯:৩০ পর্যন্ত যথানিয়মে পরিচালিত হবে ইনশাআল্লাহ। রোগী সাধারণের সাময়িক অসুবিধার জন্য ক্লিনিক কর্তৃপক্ষ আন্তরিক ভাবে দুঃখিত।

চিকিৎসক গ্রেপ্তার: চেম্বারে রোগী দেখা ও অস্ত্রোপচার বন্ধ দেশজুড়ে

0

সূত্র: bangla.bdnews24.com

সেন্ট্রাল হাসপাতাল, ঢাকার চিকিৎসক ডা. শাহজাদী মুস্তার্শিদা সুলতানা ও ডা. মুনা সাহাকে গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে গাইনি ও প্রসূতিবিদ চিকিৎসকদের সংগঠন অবস্টেট্রিক্যাল অ্যান্ড গাইনিকোলজিক্যাল সোসাইটি অব বাংলাদেশ (ওজিএসবি) এ কর্মসূচির কথা ঘোষণা করেছিল গত শনিবার। চিকিৎসকদের এই কর্মসূচীর ফলে সোমবার এবং মঙ্গলবার কার্যত দেশের বেশিরভাগ মানুষ বেসরকারি পর্যায়ে চিকিৎসা সেবা পাবেন না।

সম্প্রতি ঢাকার সেন্ট্রাল হাসপাতালে অস্ত্রোপচারের পর নবজাতক ও প্রসূতির মৃত্যুর ঘটনায় দুই চিকিৎসককে গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে সোম ও মঙ্গলবার দুদিন ব্যক্তিগত চেম্বারে রোগী দেখা এবং অস্ত্রোপচার বন্ধ রাখছেন সারা দেশের গাইনি চিকিৎসকরা। গাইনি চিকিৎসকদের এই কর্মসূচিতে একাত্মতা জানিয়েছে চিকিৎসকদের অন্যান্য সংগঠনগুলোও। অর্থাৎ চিকিৎসা খাতের প্রায় সব চিকিৎসক তাদের ব্যক্তিগত চেম্বারে রোগী দেখা এবং অস্ত্রোপচার বন্ধ রাখবেন এ দুই দিন। ফলে সোম এবং মঙ্গলবার কার্যত দেশের বেশিরভাগ মানুষ চিকিৎসকদের ব্যক্তিগত চেম্বারে চিকিৎসা সেবা পাবেন না। তবে সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসকরা সেবা দেবেন বলে সংগঠনগুলোর তরফ থেকে জানানো হয়েছে।

সেন্ট্রাল হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. শাহজাদী মুস্তার্শিদা সুলতানা ও ডা. মুনা সাহাকে গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে গাইনি ও প্রসূতিবিদ চিকিৎসকদের সংগঠন অবস্টেট্রিক্যাল অ্যান্ড গাইনিকোলজিক্যাল সোসাইটি অব বাংলাদেশ (ওজিএসবি) এ কর্মসূচির কথা ঘোষণা করেছিল গত শনিবার।

সোসাইটি অব সার্জন, বাংলাদেশের সভাপতি এবং স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. এবিএম খুরশীদ আলম সোমবার সকালে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “সোমবার ও মঙ্গলবারের কর্মসূচিতে আমরা ওজিএসবির সঙ্গে একাত্মতা জানিয়েছি। সোম ও মঙ্গলবার ব্যক্তিগত চেম্বারে রোগী দেখা বন্ধ রাখব। পাশাপাশি সেখানে কোনো ধরনের অস্ত্রোপচারও হবে না। এটা শুধু চেম্বারের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য। বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা চালু থাকবে, অস্ত্রোপচারও হবে।”

বাংলাদেশ সোসাইটি অব মেডিসিনের মহাসচিব অধ্যাপক ডা. আহমেদুল কবীর বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেছেন, সোসাইটির সদস্যরা ব্যক্তিগত চেম্বারে রোগী দেখা বন্ধ রাখবেন। তবে জরুরি পরিস্থিতে রোগী ফেরানো হবে না।

“আমরা কর্মসূচি পালন করব। কিন্তু গতকাল আমাদের মিটিং ছিল। সেখানে বলেছি জরুরি কোনো রোগী এলে তাকে চিকিৎসা দিতে হবে। সেটা চেম্বারে হলেও। এখন ডেঙ্গুর প্রকোপ চলছে এটা সবাইকে মাথায় রাখতে হবে। ইমার্জেন্সি রোগী যেন এফেক্টেড না হয়, কিন্তু রুটিন কেইস দেখব না।”

চিকিৎসক সংগঠনগুলার নেতারা জানিয়েছেন, অনেক চিকিৎসক বেসরকারি হাসপাতাল-ক্লিনিক বা ডায়াগনস্টিক সেন্টারেও রোগী দেখেন। সেসব চেম্বার বন্ধ থাকলে বেসরকারি হাসপাতালেও চিকিৎসা সেবা ব্যাহত হবে।

এখন পর্যন্ত সোসাইটি অব সার্জনস, বাংলাদেশ; বাংলাদেশ সোসাইটি অব মেডিসিন, বাংলাদেশ চক্ষু চিকিৎসক সমিতি; মেডিকেল অনকোলজি সোসাইটি অব বাংলাদেশ; বাংলাদেশ সোসাইটি অব অ্যানেস্থিসিওলজিস্টস ক্রিটিক্যাল কেয়ার অ্যান্ড পেইন ফিজিশিয়ান্স; অ্যাসোসিয়েশন ফর দি স্টাডি অব লিভার ডিজিজেস বাংলাদেশ; বাংলাদেশ কার্ডিয়াক সোসাইটি; সোসাইটি অব অটোলারিঙ্গোলজিস্ট অ্যান্ড হেড নেক সার্জনস অব বাংলাদেশ, সোসাইটি ফর মেডিকেল ভাইরোলজিস্টস, বাংলাদেশ; বাংলাদেশ একাডেমি অব প্যাথলজি, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হেপাটোলজি অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন একাত্মতা জানিয়েছে ওজিএসবির কর্মসূচির সঙ্গে।

কর্মসূচি নিয়ে এসব সংগঠন পৃথক বিবৃতি এবং সংবাদ বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে। সবগুলো সংগঠনের সদস্যদের প্রতি নির্দেশনাও মোটামুটি একইরকম। সংগঠনের সদস্যদের কর্মসূচি যথাযথভাবে পালনের অনুরোধ জানানো হয়েছে।

কর্মসূচির অংশ হিসেবে রোববার দেশজুড়ে মানববন্ধন করেছেন গাইনি চিকিৎসকরা। মঙ্গলবার কর্মবিরতির শেষে আবার বিএমএর সঙ্গে বসে পরবর্তী আন্দোলনের সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা জানিয়েছে গাইনি চিকিৎসকদের সংগঠনটি।

যে ঘটনায় এই কর্মসূচি

স্বাভাবিক উপায়ে সন্তান জন্ম দিতে গত ৯ জুন সেন্ট্রাল হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন কৃমিল্লার প্রসূতি মাহবুবা রহমান আঁখি। সেখানে পরদিন অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে তার সন্তানের জন্ম হয়। ওই নবজাতক সেদিনই মারা যায়। এরপর গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় আঁখিকে পাশের ল্যাবএইড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়; যেখানে আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ১৮ জুন মারা যান তিনি।

এ ঘটনায় আঁখির স্বামী ইয়াকুব আলী চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগে মামলা করলে পুলিশ সেন্ট্রাল হাসপাতালের দুই চিকিৎসক ডা. শাহজাদী মুস্তার্শিদা সুলতানা ও ডা. মুনা সাহাকে ১৫ জুন গ্রেপ্তার করে। এখনও তারা কারাগারে আটক আছেন। জামিন চেয়ে করা তাদের একাধিক আবেদন নাকচ করে দিয়েছে আদালত। কুমিল্লার গৃহবধু আঁখি সেন্ট্রাল হাসপাতালের চিকিৎসক অধ্যাপক সংযুক্তা সাহার অধীনে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

বিঃদ্রঃ পদ্মা ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার, হাসপাতাল রোড, চাঁপাইনবাবগঞ্জ সারা বাংলাদেশ ব্যাপী উপরোক্ত কর্মসূচীর সাথে একাত্মতা ঘোষনা করছে। তবে, সকল চিকিৎসক সংগঠনগুলোর সিদ্ধান্ত মোতাবেক ইমার্জেন্সি কোনো রোগী এলে আমরা তার প্রয়োজনীয় চিকিৎসা করাব ইনশাআল্লাহ; কারন ইমার্জেন্সি রোগী যেন এফেক্টেড না হয়। কিন্তু রুটিন কেইস দেখা হবে না। সাধারন রোগীদের সাময়িক অসুবিধার জন্য আমরা আন্তরিকভাবে দুঃখিত।

শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন

1

পদ্মা ক্লিনিক এণ্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার, হাসপাতাল রোড, চাঁপাইনবাবগঞ্জ এর মেডিসিন কনসালটেন্ট ডাঃ আবু শাহীন, সহকারী অধ্যাপক (মেডিসিন), রাজশাহী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, রাজশাহী অদ্য ২৬ জুন ২০২৩ ইং তারিখ এসোসিয়েট প্রফেসর (সহযোগী অধ্যাপক) হিসেবে প্রোমোশন প্রাপ্ত হওয়ায় পদ্মা ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার এর সকল মালিক, চিকিৎসক, কর্মকর্তা-কর্মচারীগণের পক্ষ থেকে জানাই আন্তরিক অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা।

ডাঃ মোসাঃ হাজেরা খাতুন (সুমি)

0

নতুন সংযোজনঃ গাইনী বিভাগ

এখন থেকে প্রতিদিন (শুক্রবার ব্যতীত) বিকাল ৩টা হতে সন্ধ্যা পর্যন্ত পদ্মা ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার, হাসপাতাল রোড, চাঁপাইনবাবগঞ্জ এ গাইনী বিভাগ তথা স্ত্রী ও প্রসূতী রোগীদের নিয়মিত সুচিকিৎসা প্রদান করবেন-

ডাঃ মোসাঃ হাজেরা খাতুন (সুমি)
এমবিবিএস, বিসিএস (স্বাস্থ্য)
এমএস (গাইনী এন্ড অব্‌স)
স্ত্রী ও প্রসূতী রোগ বিশেষজ্ঞ ও সার্জন
২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেলা হাসপাতাল, চাঁপাইনবাবগঞ্জ।

চেম্বারঃ
পদ্মা ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার
হাসপাতাল রোড, চাঁপাইনবাবগঞ্জ

রোগী দেখার সময়ঃ
প্রতিদিন (শুক্রবার বন্ধ) বিকাল ৩টা হতে সন্ধ্যা পর্যন্ত

সিরিয়াল/যোগাযোগ এর জন্যঃ
ফোন নম্বর- ০২৫৮৮৮৯৩১৩৩
মোবাইল নম্বর- ০১৯৪১-৭৯৪৯৩১, ০১৭৩৮-৬৬৫৫৯৩

এছাড়াও পদ্মা ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার, হাসপাতাল রোড, চাঁপাইনবাবগঞ্জ এ বরাবরের ন্যায় নিয়মিতভাবে স্ত্রী ও প্রসূতী রোগীদের চিকিৎসা সেবা প্রদান করে চলেছেন- আমাদের গাইনী বিভাগের অন্যান্য চিকিৎসকবৃন্দ; যথা- ডাঃ নূর-এ-আতীয়া (লাভলী), ডাঃ মোসাঃ মোসফিকা কাওসারী (লিসা), ডাঃ রুখসানা পারভীন (লিমা), ডাঃ শাহানা পারভীন (রিতু)ডাঃ বিউটি বেগম

সকল ডাক্তার ও অন্যান্য তথ্য সম্পর্কে নিয়মিত আপডেট পেতে ভিজিট করুনঃ
padmaclinic.net

ডাঃ মোঃ জাহিদুল ইসলাম

0

নতুন সংযোজনঃ নিউরোমেডিসিন বিভাগ

এখন থেকে প্রতি সোমবার বিকাল ৩টা হতে সন্ধ্যা পর্যন্ত পদ্মা ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার, হাসপাতাল রোড, চাঁপাইনবাবগঞ্জ এ নিউরোমেডিসিন বিভাগ তথা মস্তিষ্ক, মেরুদন্ড, স্নায়ুরোগ, স্ট্রোক, প্যারালাইসিস, শরীরের দূর্বলতা, মৃগী ও খিঁচুনী রোগী, মাথা ও কোমর ব্যথা, পারকিনসন ইত্যাদি জটিল ও কঠিন রোগে আক্রান্ত রোগীদের সুচিকিৎসা প্রদান করবেন-

ডাঃ মোঃ জাহিদুল ইসলাম
এমবিবিএস, বিসিএস (স্বাস্থ্য), সিসিডি (বারডেম)
এমডি (নিউরোলজি), বিএসএমএমইউ
নিউরো-মেডিসিন ও মেডিসিন বিশেষজ্ঞ
রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, রাজশাহী।

চেম্বারঃ
পদ্মা ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার
হাসপাতাল রোড, চাঁপাইনবাবগঞ্জ
রোগী দেখার সময়ঃ
প্রতি সোমবার বিকাল ৩টা হতে সন্ধ্যা পর্যন্ত
সিরিয়াল/যোগাযোগ এর জন্যঃ
ফোন নম্বর- ০২৫৮৮৮৯৩১৩৩
মোবাইল নম্বর- ০১৯৪১-৭৯৪৯৩১, ০১৭৩৮-৬৬৫৫৯৩

এছাড়াও পদ্মা ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার, হাসপাতাল রোড, চাঁপাইনবাবগঞ্জ এ বরাবরের ন্যায় প্রতি শুক্রবার সকাল ৯:০০টা থেকে বিকাল ৫:০০টা পর্যন্ত নিউরোমেডিসিন বিভাগের ব্রেন, নার্ভ, স্ট্রোক, প্যারালাইসিস, মাথা-ব্যথা, মাথা-ঘোরা, মাইগ্রেন, ঘাড়-কোমর ব্যথা, বাত-ব্যথা, শরীরের দূর্বলতা, জ্বালা-পোড়া, অবস, অজ্ঞান, স্মরণ শক্তি কমে যাওয়া, কাঁপুনি ও মৃগী রোগীদের সুচিকিৎসা দিয়ে চলেছেন- রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, রাজশাহীর সহকারি অধ্যাপক (নিউরোমেডিসিন) ডাঃ রেজা নাসিম আহমেদ (রনি)

সকল ডাক্তার ও অন্যান্য তথ্য সম্পর্কে নিয়মিত আপডেট পেতে ভিজিট করুনঃ
padmaclinic.net

মেডিসিনঃ প্রতিদিন

0

“অত্যাধুনিক ও উন্নত চিকিৎসা সেবার অঙ্গিকার” নিয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শহরের অন্যতম প্রধান চিকিৎসা সেবা কেন্দ্র পদ্মা ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার, হাসপাতাল রোড, চাঁপাইনবাবগঞ্জ এ প্রতিদিন মেডিসিন, গাইনী, সার্জারী, অর্থোপেডিক সহ গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন বিভাগের পোষ্ট গ্র্যাজুয়েট/উচ্চতর ডিগ্রী ধারী প্রায় অর্ধশত বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকবৃন্দ নিয়মিতভাবে তাদের আন্তরিক চিকিৎসা সেবা প্রদান করছেন। আমরাই প্রথম, জেলা শহরে এত বেশী সংখ্যক ‍উচ্চতর ডিগ্রীধারী এবং অভিজ্ঞ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের মিলন ঘটিয়েছি। জেলার হাজারও রোগী তাদের নানাবিধ জটিল, কঠিন রোগের সুচিকিৎসা গ্রহন করছেন সপ্তাহের প্রতিদিন আমাদের স্বনামধন্য বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকবৃন্দের কাছে। অন্যান্য বিভাগের পাশাপাশি মেডিসিন বিভাগের বিভিন্ন রোগীদের প্রতিদিন সু-চিকিৎসা সেবা প্রদান করছেন-


ডাঃ আবু শাহীন
এফসিপিএস (মেডিসিন)
এফএসিপি (ইউএসএ), এমআরসিপি (ইউকে)
সহকারী অধ্যাপক (মেডিসিন)
রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, রাজশাহী।
মেডিসিন বিশেষজ্ঞ
পদ্মা ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার
হাসপাতাল রোড, চাঁপাইনবাবগঞ্জ।

রোগী দেখার সময়ঃ
প্রতি শুক্রবার (সরাসরি):
সকাল ৮টা হতে রাত্রি ৮টা পর্যন্ত
প্রতি রবিবার থেকে বুধবার (টেলিমেডিসিন):
বিকাল ৩টা হতে রাত্রি ৮টা পর্যন্ত

সিরিয়ালের জন্য মোবাইল:
০১৮২২-৪৯২৪৯২


ডাঃ মোঃ তৌফিকুল ইসলাম (হেলাল)
এমবিবিএস, বিসিএস (স্বাস্থ্য), এফসিপিএস (মেডিসিন)
মেডিসিন, ডায়াবেটিস ও বাত রোগ বিশেষজ্ঞ
সিনিয়র কনসালটেন্ট (মেডিসিন)
২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেলা হাসপাতাল, চাঁপাইনবাবগঞ্জ।
মেডিসিন বিশেষজ্ঞ
পদ্মা ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার
হাসপাতাল রোড, চাঁপাইনবাবগঞ্জ।

রোগী দেখার সময়ঃ
প্রতি রবি ও বৃহস্পতিবার
দুপুর ২:৩০ মিঃ থেকে বিকাল ৪:০০ টা পর্যন্ত।

সিরিয়ালের জন্যঃ
মোবাইলঃ ০১৭৩৮-৬৬৫৫৯৩, ০১৯৪১-৭৯৪৯৩১
টেলিফোনঃ ০২৫৮৮৮৯৩১৩৩


ডাঃ মোঃ মামুন কবির
এমবিবিএস, বিসিএস (স্বাস্থ্য), এফসিপিএস (মেডিসিন)
কনসালটেন্ট (মেডিসিন)
রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, রাজশাহী।
মেডিসিন বিশেষজ্ঞ
পদ্মা ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার
হাসপাতাল রোড, চাঁপাইনবাবগঞ্জ।

রোগী দেখার সময়ঃ
প্রতি রবি ও বৃহস্পতিবার
দুপুর ২:৩০ মিঃ থেকে বিকাল ৪:০০ টা পর্যন্ত।

সিরিয়ালের জন্যঃ
মোবাইলঃ ০১৭৩৮-৬৬৫৫৯৩, ০১৯৪১-৭৯৪৯৩১
টেলিফোনঃ ০২৫৮৮৮৯৩১৩৩


হোম সার্ভিস

0

পদ্মা ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার, হাসপাতাল রোড, চাঁপাইনবাবগঞ্জ হতে আপনি আপনার বাড়ীতে বসেই পাচ্ছেন প্যাথলজিক্যাল যাবতীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য ”হোম সার্ভিস”

হ্যাঁ, আপনি এখন বাড়ীতে বসেই পাচ্ছেন, পদ্মা ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার, হাসপাতাল রোগ, চাঁপাইনবাবগঞ্জ এর বিশেষ সেবা ”হোম সার্ভিস”। আপনার বৃদ্ধ/অক্ষম মা-বাবা, আত্মীয়-স্বজন কিংবা যে কোন রোগীর রক্ত, মল-মূত্র ইত্যাদি প্যাথলজিক্যাল বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা করানোর জন্য (শুধুমাত্র চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর এলাকার জন্য) আপনার রোগীকে পরিবহন বা টানা-হেঁচড়া না করে আপনি পদ্মা ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার এর রিসেপশনে এসে নির্দিষ্ট পরীক্ষা-নিরীক্ষা সমূহের ইনভয়েস করিয়ে খুব সহজেই গ্রহন করতে পারেন আমাদের এ বিশেষ সেবা “হোম সার্ভিস”

আমাদের দক্ষ ‍ও অভিজ্ঞ টেকনোলজিষ্টগণ আপনার বাসায় থাকা যে কোন রোগীর রক্ত, মল-মূত্র ইত্যাদি প্যাথলজিক্যাল পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় স্যাম্পল সংগ্রহ করে নিবে। আপনার প্রয়োজনে যোগাযোগ করুন (প্রতিদিন সকাল ৮:০০টা হতে রাত্রি ৯:০০টা পর্যন্ত) নিচের যে কোন টেলিফোন বা মোবাইল নম্বরে-

টেলিফোনঃ ০২৫৮৮৮৯৩১৩৩, মোবাইলঃ ০১৯৪১-৭৯৪৯৩১, ০১৭৩৮-৬৬৫৫৯৩

এক ক্লিকেই সব তথ্য !

90

পদ্মা ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার, হাসপাতাল রোড, চাঁপাইনবাবগঞ্জ এর ওয়েবসাইট ভিজিট করলেই এখন নিমিষেই পেয়ে যাবেন আমাদের ক্লিনিকের কোন বিশেষজ্ঞ ডাক্তার কবে ও কখন চিকিৎসা সেবা প্রদান করছেন, কিভাবে তাঁদের সিরিয়াল পাওয়া যাবে, সাথে আমাদের ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সংক্রান্ত সকল সার্ভিস যাতবতীয় তথ্যাবলী!

প্রতি ক্ষণে ক্ষনেই এগিয়ে চলছে পৃথিবী। চিকিৎসা জগতও উন্নত থেকে উন্নততর হচ্ছে। আধুনিক চিকিৎসার সকল সূযোগ সুবিধা প্রদানের জন্য “অত্যাধুনিক ও উন্নত চিকিৎসা সেবার অঙ্গিকার” নিয়ে প্রতিষ্ঠিত জেলার অন্যতম প্রধান এ ক্লিনিকে সর্বাধিক বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক বৃন্দ সর্বোচ্চ আন্তরিকতার সাথে নিয়মিত চিকিৎসা সেবা প্রদান করে চলেছেন। বিভিন্ন বিভাগে একাধিক বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক তাদের চিকিৎসা সেবা প্রদান করছেন প্রতিদিন। মেডিসিন, গাইনী, শিশু, সার্জারী, অর্থোপেডিক, নিউরোমেডিসিন, ফিজিক্যাল মেডিসিন ও বাতব্যাথা, হৃদরোগ, বক্ষব্যাধি, নাক-কান-গলা, গ্যাস্ট্রো-এন্টারোলজি, ইউরোলজি, চর্মরোগ ও যৌরোগ, রক্তরোগ, মনোরোগ সহ বিভিন্ন বিভাগের উচ্চতর ডিগ্রীধারি ও অভিজ্ঞ প্রায় অর্ধশত বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক বা কনসালটেন্টবৃন্দ নিয়মিত চিকিৎসা প্রদান করছেন পদ্মা ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার, হাসপাতালরোড, চাঁপাইনবাবগঞ্জ এ।

এছাড়াও সু-চিকিৎসার জন্য প্রয়োজনীয় বড়-ছোট প্রায় সব ধরণের পরীক্ষা-নিরীক্ষা হচ্ছে পদ্মা ক্লিনিকেই। এমআরআই, সিটি স্ক্যান, ডিজিট্যাল এক্স-রে, ইকো কার্ডিওগ্রাফী, কালার ডপ্লার ও TVS সহ 4D আল্ট্রাসনোগ্রাফী, 6-chanel ইসিজি, এন্ডোস্কপি, ক্লোনোস্কপি, ইইজি, এনসিএস এবং হিস্টোপ্যাথলজি ও হরমোনের বিভিন্ন পরীক্ষা সহ রক্ত ও প্রোস্রাবের যাবতীয় পরীক্ষা যুগোপযোগী ও উন্নত যন্ত্রপাতি আর দক্ষ ও অভিজ্ঞ প্যাথলজি ও হেমাটোলজি কনসালটেন্ট ও টেকনোলজিস্ট দ্বারা সম্পন্ন করা হচ্ছে অত্র ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টারে।

তাই আস্থার সাথে উন্নত চিকিৎসা সেবা গ্রহণের জন্য চলে আসুন পদ্মা ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার, হাসপাতাল রোড, চাঁপাইনবাবগঞ্জে। আর সঠিক তথ্য পেজে নিয়মিত ভিজিট করুন আমাদের ওয়েবসাইট

স্বাস্থ্য পরীক্ষা- কেন ও কোথায় করাবেন?

2

নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষা করান, সুস্থ্য থাকুন!

বিশাল জনসংখ্যার কারণে বাংলাদেশ দ্বিগুণ রোগের মুখোমুখি হয়; অসংক্রামক রোগ: ডায়াবেটিস, হৃদরোগ, উচ্চ রক্তচাপ, স্ট্রোক, দীর্শ্বাঘমেয়াদী শ্বসনতন্ত্রের রোগ, ক্যান্সার এবং সংক্রামক রোগ: যক্ষ্মা, এইচআইভি, ধনুষ্টংকার, ম্যালেরিয়া, হাম, রুবেলা, কুষ্ঠব্যাধি ইত্যাদি বিভিন্ন রোগে প্রতিনিয়ত মানুষের রোগাক্রান্ত হওয়ার প্রবণতা বা ‍ঝুঁকি বেড়েই চলেছে দিন দিন। [তথ্য সূত্র]

“BBC News বাংলা” এর একটি প্রতিবেদনে প্রকাশিত হয়, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্য অনুযায়ী, বাংলাদেশে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক মানুষ মারা যায় হৃদরোগ ও স্ট্রোকের কারণে। প্রশ্ন আসে – একজন মানুষের কোন সময় হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে তা কীভাবে অনুমান করা সম্ভব। আপাতদৃষ্টিতে এই প্রশ্নের উত্তরটা সহজ – নিয়মিত স্বাস্থ্যপরীক্ষা করলেই মানুষের স্বাস্থ্যের সামগ্রিক চিত্রের একটি ধারণা পাওয়া সম্ভব। কিন্তু কোন সময় ঠিক কোন পরীক্ষাটি করা উচিত? সেটি কীভাবে নির্ণয় করা সম্ভব?

একটি জরিপে বলা হয়েছে, এক বছরের ব্যবধানে দেশে ব্রেন স্ট্রোক বা মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণজনিত মৃত্যু দ্বিগুণ হয়ে গেছে। পাশাপাশি আশঙ্কাজনকভাবে বেড়েছে হৃদরোগ বা হার্ট অ্যাটাকে মৃত্যুও। [NewsBangla24]

শুনে আশ্চর্য হবেন, বাংলাদেশে বছরে দেড় লাখ মানুষ আক্রান্ত হয় ক্যান্সারে। ইন্টারন্যাশনাল এজেন্সি ফর রিসার্চ অন ক্যান্সার (আইএআরসি) রিপোর্ট অনুযায়ী, বছরে এক লাখ আট হাজার ক্যান্সার আক্রান্ত মৃত্যুবরণ করেন। এদের বেশির ভাগই যথাযথ চিকিৎসা না পেয়ে অথবা অবৈজ্ঞানিক চিকিৎসা খপ্পরে পড়ে মারা যান। আবার শেষপর্যায়ে এসে ক্যান্সার শনাক্ত হওয়ার কারণে কোনো চিকিৎসা কাজ করে না, এমন মানুষ আছে যাদের শেষ পরিণতি মৃত্যু। [তথ্য সূত্র] তাই, আপনি নিয়মিত প্রয়োজনীয় বিভিন্ন স্বাস্থ্য পরিক্ষা সমূহ করিয়ে নিন। অজান্তে ও অনাকাঙ্খিত কোন রোগ হতে মুক্ত থাকুন। আর কোন রোগে আক্রান্ত হলে অনর্থক আশাহত না হয়ে এখনই সঠিক চিকিৎসা গ্রহন করুন।

বিশ্বাস করুন আর নাই করুন! আজ দেশের স্বাস্থ্য খাত রয়েছে বিরাট এক আস্থার সংকটে [প্রথম আলো]। সাধারণ মানুষ আজ অসহায়! তাদের একদিকে যেমন দিনে দিনে অসূখ বেড়েই চলেছে, তেমনি সে অসূখের চিকিৎসা গ্রহণের জন্য ভিন্নদিকে বিভিন্ন হাসপাতাল/ক্লিনিক গুলোতেও শিকার হচ্চে হয়রাণীর! এ হয়রাণী হতে মুক্তি দিয়ে সঠিক ও সুচিকিৎসা প্রদানের জন্য প্রায় অর্ধশত বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের উপস্থিতি ও প্রয়োজনীয় MRI, CTScan সহ প্রায় সব ধরণের পরীক্ষা-নিরীক্ষার সুব্যবস্থা করেছে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শহরের পদ্মা ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার , হাসপাতাল রোড, চাঁপাইনবাবগঞ্জ।

অত্যাধুনিক ও উন্নত চিকিৎসা সেবার অঙ্গিকার নিয়ে প্রতিষ্ঠিত পদ্মা ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার ২০১৫ সাল হতে আজ অবধি হাজার হাজার জন-মানুষের সেবা দিয়ে তাই একটি আস্থার প্রতিক হিসেবে পরিনত হয়েছে। কর্তৃপক্ষ চায়, জন-মানুষের সুপরামর্শ নিয়ে সেবার রাস্তায় আরও অনেক অনেক দূর ও অনন্ত পথ চলতে। তাই আপনারা আসুন- আপনার, আপনার পরিবার/আত্মীয় স্বজন বা বন্ধু-বান্ধবদের সুচিকিৎসা গ্রহনে পদ্মা ক্লিনিকের স্মরণাপন্ন হউন। আপনার সেবা দানেই আমাদের পরিতৃপ্তী!